খালিস্তান: শিখদের স্বপ্নের স্বাধীন দেশ


পারভেজ সেলিম


(পর্ব : ০১)

গত ১৮ জুন, ২০২৩ ভারতীয়-কানাডিয়ান এক শিখ নাগরিক আততায়ীর গুলিতে নিহত হয়। তার শরীরে ৩৪ টি গুলির চিহ্ন পাওয়া যায়। কানাডার ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় গুরুদুয়ারার সামনে তাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। নিহত ব্যক্তির নাম হরদীপ সিং নিজ্জার।

নিহত হবার পর কানাডার পার্লামেন্টে প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এক বিষ্ফোরক অভিযোগ আনেন ভারত সরকারের বিরুদ্ধে। তিনি দাবি করেন, ৪৫ বছর বয়সী হরদীপ সিং হত্যায় ভারতীয় গোয়ান্দা সংস্থা জড়িত থাকার ‘বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ’ তাদের হাতে রয়েছে।

ভারত যদিও সেই দাবি সরাসরি নাকচ করে দিয়েছে। তবু কানাডা আর ভারতের মধ্যে শুরু হয়ে যায় কুটনৈতিক যুদ্ধ। ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা ‘র’ এর প্রধানকে বরখাস্ত করে কানাডা আর কানাডার কুটনীতিককে ফেরত পাঠায় ভারত।

সবশেষ আগ বাড়িয়ে কানাডার নাগরিকদের ভিসা দেয়া বন্ধ করে দিয়েছে ভারত সরকার।এরপর থেকেই পাঞ্জাব, শিখ ও খালিস্তান নিয়ে আলোচনা ও আগ্রহের মাত্রা ব্যাপক পরিমানে বেড়েছে।

হরদীপ সিং নিজ্জার

কে এই হরদীপ সিং?

কানাডীয় শিখদের উদীয়মান একজন নেতা ছিলেন হরদীপ সিং নিজ্জার। ব্রিটিশ কলম্বিয়ার গুরুদুয়ারের প্রধাণ ছিলেন নিজ্জার।নিভে যাওয়া ‘খালিস্তান আন্দোলন’কে নতুন করে জাগিয়ে তুলতে কাজ করছিলেন তিনি।

কানাডা সরকারের অভিযোগ ভারতের গোয়ান্দা সংস্থা এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে। যদিও হত্যার দায় অস্বীকার করা ভারতের অভিযোগ, হরদীপ সশস্ত্র বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন ‘খালিস্তানি টাইগার ফোর্স’ ও ভারতে নিষিদ্ধ ‘শিখস ফর জাস্টিসে’র কানাডা শাখার নেতা ছিলেন।

ভারতের চোখে তিনি সন্ত্রাসী ও ফেরারী ছিলেন। তাঁকে দেশে ফেরত আনতে আগ্রহী ছিল ভারত।এর মধ্যেই হত্যা করা হলো হরদীপকে। সারা বিশ্বে শিখদের ‘খালিস্তান আন্দোলন’ আবারোও মাথা চাড়া দিয়ে উঠলো।

কিন্তু কি এই খালিস্তান আন্দোলন? কিভাবে এই শুরু হলো? পরিনতি কি? নতুন করে কেন আবার এই আন্দোলন জেগে উঠছে?

ভারত ও কানাডার সম্পর্ক তলানিতে এসে ঠেকেছে

শিখদের স্বাধীন স্বপ্নর দেশ খালিস্তান

সাতচল্লিশের দেশভাগের সময় মুসলমানদের জন্য ‘পাকিস্তান’ আর হিন্দুদের জন্য ‘হিন্দুস্তান’, দুটি নতুন রাষ্ট্রের জন্ম হয়।সেসময় শিখ ধর্মের মানুষরাও তাদের জন্য একটি স্বাধীন দেশের স্বপ্ন দেখেছিল, তার নাম ‘খালিস্তান’। কিন্তু তাদের সেই স্বপ্ন পুরুণ হয়নি।

দেশ ভাগের যন্ত্রণা বাঙলার মতো পাঞ্জাবও কে ভোগ করতে হয়েছে। পাঞ্জাব ও বাংলা ভেঙ্গে দু টুকরো হয়েছে ইংরেজদের হাতে।

দেশভাগের পরও শিখেরা তাদের স্বপ্নের স্বাধীন দেশের আকাঙ্খা দীর্ঘদিন বুকে লালন করে রেখেছ। আন্দোলন, সংগ্রাম, এমনি স্বসস্ত্র যুদ্ধও করেছে খালিস্তান পন্থীরা। কিন্তু তাদের চেষ্ঠা এখন পর্যন্ত ব্যর্থ হয়েছে।

শিখদের একটা স্বাধীন দেশের আন্দোলনই হচ্ছে ‘খালিস্তান আন্দোলন’।

দেশভাগ, ধর্মীয় রাজনীতির আগ্রাসন, জার্নেইল সিং ভিন্দ্রানওয়ালের উত্থান, অপারেশন ব্লু স্টার, ইন্দিরা গান্ধী হত্যা, শিখ-হিন্দুর নৃশংস দাঙ্গাসহ একের পর এক ঘটনায় পাঞ্জাব যেন পুরো ভারতের রাজনীতির মুল কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠেছিল এই ‘খালিস্তান আন্দোলন’কে ঘিরে।

এই আন্দোলনের ইতিহাস খুব সুখকর কিংবা অহিংস ছিল না। এর অতীত ইতিহাস বড়ই নিষ্ঠুর, নৃশংস এবং অমানবিক।

চলুন মহাকাব্যিক সেই আন্দোলনের রোলার কোস্টারে চেপে বসা যাক।

(চলবে..)


পারভেজ সেলিম

লেখক,সাংবাদিক ও চলচ্চিত্রকর্মী


‘খালিস্তান আন্দোলন’ আরো কয়েকটি পর্ব পড়ুন :

পর্ব : ০১ : খালিস্তান: শিখদের স্বপ্নের স্বাধীন দেশ

পর্ব : ০২ : গুরু নানক: যার হাতে নতুন ধর্মের শুরু

পর্ব : ০৩ : দশ গুরু: শিখ ধর্ম যাদের হাতে গড়ে উঠেছে

 পর্ব : ০৪ : পাঞ্জাবের সমৃদ্ধ ইতিহাস ও দেশভাগের প্রবঞ্চনা!

 পর্ব : ০৫ : পাঞ্জাব: দেশভাগের পরের উথাল পাতাল রাজনীতি

 পর্ব : ০৬ : খালিস্তান: প্রবাসী সরকার ও পাকিস্তানের মদদ

পর্ব : ০৭ : জার্নেইল সিং ভিন্দ্রানওয়ালে: এক সাধুর উত্থান ও ট্রাজিক পতন

 পর্ব : ০৮ : কে এই জার্নেইল সিং ভিন্দ্রানওয়ালে?

পর্ব : ০৯ : অপারেশন ব্লু স্টার: ইন্দিরা গান্ধির শেষ যুদ্ধ !

পর্ব : ১০ : ইন্দিরা গান্ধী হত্যা: শিখদের হাতেই জীবন উৎসর্গ!

৫ thoughts on “খালিস্তান: শিখদের স্বপ্নের স্বাধীন দেশ

  1. This article is a treasure trove of knowledge! I admire your ability to simplify a complex topic into easily understandable segments. It’s clear that you possess both expertise and great communication skills. By the way I am a Senior Researcher at Clickmen™ – #1 Web Designing Company in USA and Canada providing Web Designing & Development as well as Search Engine Optimization (SEO) services throughout European Union, United States & Canada.

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x