মহামারির ঈদ !

এক মাস রোজা শেষে যথা নিয়মেই ঈদের দিন এসে উপস্থিত আমাদের ঘরে। বিষণ্ণ ঈদ। করোনাকালের ঈদ।পৃথিবীর মানুষ এমন ঈদ এর আগে কখোনো দেখেনি। ঈদ মানে খুশি সেই খুশি তো ভাগাভাগি করায় আরো বাড়ে। এবার ঈদের খুশি ভাগাভাগি করার এক নতুন দিগন্ত খুলে গিয়েছে। রোজা যেমন সংযমের পরীক্ষা তেমনি ঈদ উদযাপনেও এবার সংযম দেখা গেছে। ঈদে এক কাতারে এসে এমনভাবে এর আগে কখোনো দাঁড়ায়নি মানুষ।গরীর আর বড়লোকের ঈদ এবার সমানে সমান।

ঈদ আনন্দের নামে অতিরিক্তি বাড়াবাড়ি যেমন দেখা যায়নি, তেমনি ঈদগাহে নামাজ না পড়তে পারাও অনেকের মনে কষ্টের কারণ হয়েছে। তবে দুর্যোগকালিন সময়ে মসজিদে ঈদের নামাজ নতুন নয়। গত বছরেও বৃষ্টির কারনে ঈদের নামাজ অনেকে মসজিদে পড়েছেন। তবে এবারেরটা একেবারে ভিন্ন। সরকারি এলান ঈদগাহে নয় মসজিদে নামাজ হবে। বাড়াবাড়ি নয় বাড়িতে আনন্দ হবে। কত সহজে যে ঈদ পালন করা যায় তার শিক্ষা দেখা গেল এবারের এই ‘মহামারির ঈদ’ এ।

একদিন এই মহামারি মুক্ত হবে পৃথিবী। এক নতুন পৃথিবীতে আলো এসে জন্ম হবে নতুন মানবিকতার। জন্ম নেবে নতুন ঈদের। সারা পৃথিবীতে মানুষ মানুষকে ভালোবাসবে, হিংসায় উম্মোত্ত পৃথিবী ভালোবাসার ঈদে জড়িয়ে থাকবে সারা বছর। এটাই সুস্থ কামনা। স্বাভাবিক আকাঙ্খা। সবাইকে ঈদ শুভেচ্ছা। ঈদ মোবারক।

সম্পাদক, আলোর দেশে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *